Some great Poems

তোমার লেখনী যেন ন্যায়দণ্ড ধরে
শত্রু মিত্র নির্বিভেদে সকলের ‘ পরে ।
স্বজাতির সিংহাসন উচ্চ করি গড়ো ,
সেই সঙ্গে মনে রেখো সত্য আরো বড়ো ।
স্বদেশেরে চাও যদি তারো ঊর্ধ্বে ওঠো ,
কোরো না দেশের কাছে মানুষেরে ছোটো ।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

যা রাখি আমার তরে
মিছে তারে রাখি,
আমিও রব না যবে
সেও হবে ফাঁকি।
যা রাখি সবার তরে
সেই শুধু রবে—
মোর সাথে ডোবে না সে,
রাখে তারে সবে।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

রাখি যাহা তার বোঝা
কাঁধে চেপে রহে।
দিই যাহা তার ভার
চরাচর বহে।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

সত্যেরে যে জানে, তারে
সগর্বে ভাণ্ডারে রাখে ভরি।
সত্যেরে যে ভালোবাসে
বিনম্র অন্তরে রাখে ধরি।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

সব চেয়ে ভক্তি যার
অস্ত্রদেবতারে
অস্ত্র যত জয়ী হয়
আপনি সে হারে।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

সেই আমাদের দেশের পদ্ম
তেমনি মধুর হেসে
ফুটেছে, ভাই, অন্য নামে
অন্য সুদূর দেশে।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

মূল
আগা বলে, আমি বড়ো, তুমি ছোটো লোক।
গোড়া হেসে বলে, ভাই, ভালো তাই হোক।
তুমি উচ্চে আছ ব’লে গর্বে আছ ভোর,
তোমারে করেছি উচ্চ এই গর্ব মোর।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

পর-বিচারে গৃহভেদ
আম্র কহে, এক দিন, হে মাকাল ভাই,
আছিনু বনের মধ্যে সমান সবাই—
মানুষ লইয়া এল আপনার রুচি,
মূল্যভেদ শুরু হল, সাম্য গেল ঘুচি।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

নিজের ছায়া মস্ত করে
অস্তাচলে বসে বসে
আঁধার করে তোল যদি
জীবনখানা নিজের দোষে,
বিধির সঙ্গে বিবাদ করে
নিজের পায়েই কুড়ুল মার,
দোহাই তবে এ কার্যটা
যত শীঘ্র পার সারো।
খুব খানিকটে কেঁদে কেটে
অশ্রু ঢেলে ঘড়া ঘড়া
মনের সঙ্গে এক রকমে
করে নে ভাই, বোঝাপড়া।
তাহার পরে আঁধার ঘরে
প্রদীপখানি জ্বালিয়ে তোলো–
ভুলে যা ভাই, কাহার সঙ্গে
কতটুকুন তফাত হল।

মনেরে তাই কহ যে,
ভালো মন্দ যাহাই আসুক
সত্যেরে লও সহজে।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর


জননী বঙ্গভাষা, এ জীবনে
চাহি না অর্থ চাহি না মান,
যদি তুমি দাও তোমার ও-দুটি
অমল-কমল-চরণে স্থান!

দ্বিজেন্দ্রলাল রায়

স্বাধীনতার সুখ

বাবুই পাখীরে ডাকি বলেছে চড়াই
কুঁড়ে ঘরে থেকে কর শিল্পের বড়াই।
আমি থাকি মহাসুখে অট্টালিকা পরে
তুমি কত কষ্ট পাও, রোদ বৃষ্টি ঝড়ে।
বাবুই হাসিয়া কহে সন্দেহ কি তায় ?
কষ্ট পাই তবু থাকি নিজের বাসায়।
পাকা হোক তবু ভাই পরের বাসা
নিজ হাতে গড়া মোর কাঁচা ঘর খাসা।

— রজনীকান্ত সেন (১৮৬৫-১৯১০)


স্বর্গ ও নরক

কোথায় স্বর্গ কোথায় নরক ? কে বলে তা বহুদূর ?
মানুষেরি মাঝে স্বর্গ নরক, মানুষেতে সুরাসুর।
রিপুর তাড়নে যখনি মোদের বিবেক পায়গো লয়
আত্ম-গ্লানির নরক অনলে তখনি পুড়িতে হয়।
প্রীতি প্রেমের পূণ্য বাঁধনে যবে মিলি পরস্পরে,
স্বর্গ আসিয়া দাড়ায় তখন আমাদেরই কুঁড়ে ঘরে।

— শেখ ফজলুল করিম (১৮৮২- ১৯৩৬)


অধ্যবসায়

পাছে কোন বিঘ্ন হয় এই ভাবি মনে
কার্যে নাই তাই (মন) দেয় যত নীচ জনে।
একবার বাধা পেলে মধ্যম যে জন
হতাশ হইয়া করে চেষ্টা বিসর্জন।
কোন কাজ ধরে যদি উত্তম যে জন
হউক সহস্র বিঘ্ন ছাড়েনা কখন।

— ডঃ মোহাম্মদ শহীদুলস্নাহ (১৮৮৫-১৯৬৯)


সবার আমি ছাত্র

আকাশ আমায় শিক্ষা দিল উদার হতে ভাইরে।
কর্মী হবার মন্ত্র আমি বায়ুর কাছে পাইরে।
পাহাড় শিখায় তাহার সমান
হই যেন ভাই, মৌন মহান।
খোলা মাঠের উপদেশে দিলখোলা হই তাইরে।
বিশ্বজোড়া পাঠশালা মোর সবার আমি ছাত্র
নানান ভাবের নতুন জিনিস শিখছি দিবারাত্র।
এই পৃথিবীর বিরাট খাতায়
পাঠ্য যেসব পাতায় পাতায়
শিখছি সেসব কৌতুহলে সন্দেহ নাই মাত্র।

— সুনির্মল বসু (১৯০২-১৯৫৭)



Posted in Uncategorized | Leave a comment

A Rare Poem By Rabindranath

A Rare Poem By Rabindranath Tagore.

Keno Mone Hoy- Rabindranath Tagore

Posted in Uncategorized | Leave a comment

Comment

Free India will not to be a land of capitalists,land-lords and castes.Free India will be social and political democracy.

Subhas Chandra Bose


Posted in Uncategorized | Tagged | Leave a comment

Micchami Dukadam

Khamemi Savve Jiva – I forgive all the living beings
Savve Jiva Khamantu
– I seek pardon from all the living beings
Mitti Me Savva Bhutesu – I am friendly towards all the living beings
Veram Majjham Na Kenvi – And seek enmity with none

On this auspicious day of Samavatsari I join my two hands to apologize from my heart. If I have ever hurt you directly or indirectly, knowingly or unknowingly by any chance please forgive me.  “Man, Vachan, Kayae kari
MICHHAMI DUKKADAM”.

Micchami Dukadam

Lord Mahavira

Jai Jinendra.


Posted in Uncategorized | Leave a comment

Hello All

Please let us know about the books recently you have gone through…

Posted in Uncategorized | Leave a comment

Hello world!

Welcome to WordPress.com. This is your first post. Edit or delete it and start blogging!

Posted in Uncategorized | 1 Comment